Why Study Institute of Science & Technology (IST)

আই.এস.টি’র পরিচিতিঃ

১৯৯৩ সালে ধানমন্ডির নিরিবিলি পরিবেশে প্রতিষ্ঠিত হয় একটি অলাভজনক, বেসরকারী, অরাজনৈতিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইন্সটিটিউট অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজি (আই.এস.টি)- যার উদ্বোধন করেন প্রয়াত নোবেল বিজয়ী বিজ্ঞানী প্রফেসর ড. আব্দুস সালাম। জন্মলগ্ন থেকে এ প্রতিষ্ঠান দেশে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি শিক্ষা বিস্তারের উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে চলেছে। আই.এস.টি থেকে পাশ করা ছাত্র-ছাত্রীগণ বর্তমানে দেশ-বিদেশের অনেক খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত। আমরা বিশ্বাস করি , “Education is a Commitment, Not a Business.”

আই.এস.টি’র শিক্ষা পদ্ধতিঃ
ডিপ্লোমা ইন কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং, ডিপ্লোমা ইন টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং, ডিপ্লোমা ইন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ডিপ্লোমা ইন ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জনিয়ারিং কোর্সের যাবতীয় কারিকুলাম বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক প্রণীত। ভর্তি, রেজিস্ট্রেশন, পরীক্ষা গ্রহন, সার্টিফিকেট প্রদান ইত্যাদি সব বিষয়ে কারিগরি শিক্ষাবোর্ড নিয়ন্ত্রণ করে। একজন শিক্ষার্থী ১০% শিখে লেকচার থেকে, ১০% রিডিং থেকে, ৩০% শুনে ও ৫০% শিখতে পারে হাতে কলমে করার মাধ্যমে, কারিগরি শিক্ষার এই উদ্দেশ্যটির দিকে আই.এস.টি.তে বিশেষ ভাবে লক্ষ্য রাখা হয়, ফলে কারিগরি শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য Knowledge,  Skill & Attitude ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে Developed হয়।

আই.এস.টি’র সুবিধা সমূহঃ

→ মেয়েদের জন্য সেমিস্টার ফি হতে ২০% ছাড়।
→ প্রতি সেমিস্টারে রেজাল্টের উপর ৪০% ছাড় (যে সকল ছাত্রছাত্রী জি.পি.এ ৪.০০ এর মধ্যে ৩.৫০ এর উপরে পেয়ে ১ম এবং ২য় স্থান অধিকার করবে)।
→ সেমিস্টার ফি কিস্তিতে পরিশোধযোগ্য।
→ ১০০% মেয়েদের এবং আর্থসামাজিক বিবেচনায় ছেলেদের Skills and Training Enhancement Project (STEP) এর আওতায় Finance by World Bank & CANADA মাসিক ৮০০ টাকা হারে সরকারি বৃত্তি প্রদান।
→ এস.এস.সি জি.পি.এ এর উপর ভর্তি ফি তে ৭৫% পর্যন্ত ছাড়।
→ দেশে-বিদেশে পিএইচ.ডি ও মাস্টার্স ডিগ্রী এবং সরকারী ভাবে ট্রেনিং প্রাপ্ত শিক্ষকমন্ডলী।
→ সবার জন্য কম্পিউটার ও ইন্টারনেট সুবিধাসহ আধুনিক ল্যাব।
 কোন শিক্ষার্থীকে প্রাইভেট পড়তে হয় না।
→ মেয়েদের জন্য আবাসিক হোস্টেলের সু-ব্যবস্থা।
→ সু-পরিসর ও নিরিবিলি ফ্রি ওয়াই-ফাই ক্যাম্পাস।

 

Photo & Video Gallery